ডিমলায় অটোবাইকে চাদাঁবাজীর অভিযোগে ২ জন আটক

নীলফামারীর ডিমলায় অটোবাইকে চাঁদাবাজী অভিযোগে শনিবার সন্ধ্যায় শুটিবাড়ী মোড় থেকে ২জনকে আটক করেছে পুলিশ। আটককৃতরা হলেন বালাপাড়া ইউনিয়নের আমিনুর রহমানের পুত্র ফজলার রহমান (৩৩) ও ডিমলা সদর ইউনিয়নের তালেব আলীর পুত্র মোখলেছুর রহমান (৪২)।
জানা যায়, গত ৭ ডিসেম্বর চাদাঁবাজী বন্ধের দাবীতে বিক্ষোভ মিছিল করে অটোচালক সমবায় সমিতির। পরে তারা চাঁদাবাজী বন্ধের দাবীতে উপজেলা সদরে বিক্ষোভ সমাবেশ ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নাজমুন নাহার, ডিমলা থানার অফিসার ইনচার্জকে স্বারকলিপি প্রদান করেন।
স্বারকলিপি প্রদান পর পুনরায় উক্ত সমবায় সমিতিই নিবন্ধন নং-নীল/জেসকা-৫৩ সভাপতি ইউসুব আলী আলীর নেতৃত্বে চাদাঁবাজী শুরু করেন। অভিযোগ উঠেছে জেলা সমবায় অফিসে রেজিস্ট্রেশন করে ৭শ অটোবাইক চালকের নিকট প্রতিদিন ১০ টাকা করে চাদাঁ আদায় করে আসছে।

যাতে উক্ত চাঁদা উত্তোলনে সমস্যা কেহ করতে না পারে সে কারনে প্রশাসনকে নাড়া দিতে গিয়ে ফেঁসে গেলেন নিজেরাই। স্বারকলিপির উল্লেখ করা হয়েছিল গ্রামের হতদরিদ্র হাঁস মুরগী বিক্রি করে অটোবাইক ক্রয় করে জীবন জীবিকা নিবাহ করে আসছিল।
ডিমলা উপজেলা অটোচালক সমবায় সমিতির সভাপতি ইউসুফ আলী জানায়, আমরা ফেডারেশন ফোরামের নামে চাদাঁবাজী বিরুদ্ধে বিক্ষোভ সমাবেশ ও স্বারকলীপি প্রদান করেছি। পুলিশ দুইজনকে গ্রেফতার করেছে তারা আমাদের অটোচালক সমবায় সমিতির লোক। তারা সমবায়ের সঞ্চয় তুলছিল।
ডিমলা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নাজমুন নাহার বলেন, গত ৭ ডিসেম্বর অটোবাইকে চাঁদা বন্ধের দাবীতে বিক্ষোভ সমাবেশ ও স্বারকলিপি প্রদান করেছিল।

অটোবাইকের অভিযোগে পুলিশ গিয়ে তাদের চাদাঁবাজি করার সময় রশিদসহ আটক করেছে।

ডিমলা থানার ওসি মোয়াজ্জেম হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, অটোবাইকে চাঁদা উত্তোলনের সময় ২জন আটক করা হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email
Loading...